কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেসে আপনার ফেভিকন (Fav icon) পরিবর্তন করবেন?

আজকের এই লেখাটিতে আমরা জানবো কিভাবে খুব সহজে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটে আইকন পরিবর্তন বা বদলাতে পারি। ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বর্তমানে প্রচলিত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম। ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের দ্বারা পৃথিবীর বড় বড় ওয়েবসাইট ম্যানেজমেন্ট করা হয়। ওয়ার্ডপ্রেস এর দ্বারা ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করে বিভিন্ন কাজে আমরা সেটাকে ব্যবহার করতে পারি। ওয়ার্ডপ্রেস এর দ্বারা আমরা মনিটাইজেশন অন করে ইন্টারনেটের জগতে অনেকটা অর্থ উপার্জন করতে পারি। তবে আমাদের একটি ওয়েবসাইট বানাতে সঠিক লোগোর ভূমিকা অনেকটা গুরুত্বপূর্ণ। এই কারণে আজকে আমরা শিক্ষা নিব কিভাবে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের জন্য fav icon লাগাতে পারি ।

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট কি?


ওয়ার্ডপ্রেস হলো একটি কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এটি দ্বারা বিভিন্ন ধরনের ব্লগ ওয়েবসাইট ম্যানেজ করা হয়ে থাকে। যেসকল ব্যক্তি ইন্টারনেটে নিজেদের লেখা কন্টাক্ট ব্লগ হিসেবে পাবলিশ করতে চান তারা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করেন। এটি একটি সিএমএস। ইন্টারনেটের জগতে বেশিরভাগ ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেসে তৈরি হয়ে থাকে। ওয়ার্ডপ্রেসে খুব সহজে একটি ওয়েবসাইটকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় এবং বিভিন্ন পোস্ট খুব সহজে নিমেষেই লেখা এবং সকলকে পড়ার জন্য তৈরি করা যায়।

Fav icon কি?


আমরা যখন নিজেদের ফোনে বা ল্যাপটপ এ বা কম্পিউটারে কোন ওয়েবসাইট খুলি তখন আমাদের সামনে অনেক জিনিস চলে আসে। যদি আপনি সঠিক নয সহকারে কোন ওয়েবসাইটকে দেখেন তাহলে আপনি কিছু জিনিস লক্ষ্য করবেন খুব সহজে। সবার প্রথমে আপনাকে যেটির চোখে পড়বে সেটি হল ওয়েবসাইটের লোগো। সাথে সাথে আরো দুটো জিনিস আপনার চোখে পড়বে সেটি হল ওয়েবসাইটের নাম এবং Fav icon। এটি হলো ওয়েবসাইটের একদম উপরের লোগো। এটাকেই বলা হয়ে থাকে Fav icon। একটি ওয়েবসাইটের সুদর্শন এর উপরে এই জিনিসটা অনেকটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকে। একটি সুন্দর আইকন আপনার ওয়েবসাইটকে অনেকটা ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করে দর্শকদের সামনে।

read-

কিভাবে আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে Fav icon পরিবর্তন বা বদল করতে পারবেন?

  • আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে লগ ইন করুন.
  • আপনি যখন লগ ইন করবেন,
  • তখন আপনি আপনার ‘ড্যাশবোর্ড’-এ থাকবে
  • ‘এপিয়ারেন্স’-এ ক্লিক করুন।
  • বাম দিকে, আপনি একটি মেনু দেখতে পাবেন।
  • ‘কাস্টমাইজ’-এ ক্লিক করুন।
  • ‘সাইট আইডেন্টিটি’-এ ক্লিক করুন
  • ‘সাইট আইকন’-এর অধীনে আপনার ফেভিকন যোগ করুন।

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

এইভাবে খুব সহজে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে এটিকে চেঞ্জ করতে পারবেন এবং ইচ্ছামতো পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে আপনাকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কোন জিনিস আমরা জানাতে চাইবো। সব সময় নিজের এই আইকনটি কে আকর্ষিত করতে চেষ্টা করবেন। যখন আপনার ওয়েবসাইটকে দেখতে অনেকটা সুন্দর লাগবে তখন কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের দর্শক সংখ্যা বাড়ার একটি প্রচন্ড সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে আপনার ওয়েবসাইট থেকে আপনি অধিক তর অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। যদি লেখা টি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের আরও গুরুত্বপূর্ণ লেখা পড়ে যেতে পারবেন। আমাদের লেখা কেমন লাগলো অবশ্যই নিচে কমেন্ট বক্সে জানাবেন এবং আপনার কোন ব্যক্তিগত সমস্যা থাকলেও আমাদের জানাবেন আমরা সেই বিষয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেয়ার চেষ্টা করব।

Leave a Comment