আধার কার্ড থাকলে আপনি এই কুড়ি হাজার টাকার সরকারের প্রকল্পে অংশগ্রহণ নিতে পারবেন না

রাজ্য মানুষের জন্য আরো একটা সুখবর নিয়ে হাজির আমাদের এই বাংলাগ্লোবাল .কম। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে অনেক রকম সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। রাজ্যের মানুষকে দুয়ারে সরকার প্রকল্প চালু হবার পর লক্ষী ভান্ডার ছাড়া ও অনেক প্রকল্প এর সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। যাতে করে মানুষ প্রতি মাসে তাদের একাউন্টে কিছু পরিমাণ টাকা পায় ।যাতে করে তাদের পরিবারটা সচ্ছল থাকে।আসুন জেনে নিয়ে যাক এই সকল বিষয় সম্বন্ধে আমাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বিস্তারিত ভাবে।

সরকারের তরফ থেকে জানানো গিয়ে এসেছে যে সকল মহিলারা আধার লিঙ্ক এর অভাবে অনেক সুবিধা পাচ্ছে না । তাদের এই সমস্যার সমাধান খুব জলদি করতে হবে এবং তারা যেন ওই সুযোগ-সুবিধা পাই সেই জিনিসটা দেখতে হবে।

আরো পড়ো –বাংলা সহায়তা কেন্দ্র রেজিস্ট্রেশন(BSK) | রেশন কার্ড থেকে স্কলারশিপ থেকে চিকিৎসা যাবতীয় সরকারি প্রকল্পের সমাধান এক ক্লিকে

লক্ষ্মীর ভান্ডারের জন্য আবেদন করা মহিলাদের আধারের অভাব বা দুয়ারে সরকার শিবির থেকে স্বাস্থ্য সাথীর কাছে আধার বৈধতা না থাকার কারণে ফেরত দেওয়া হচ্ছে এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

কখন অনুষ্ঠিত হবে?

  • প্রতি মাসে. 18 নভেম্বর পর্যন্ত, রাজ্যে 33,946 টি ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং 5153380 জন দর্শক নিবন্ধিত হয়েছে।
  • সরকার অনুষ্ঠানের পঞ্চম সংস্করণ ১ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। ক্যাম্পে প্রাপ্ত সমস্ত আবেদনের নিষ্পত্তি 31 ডিসেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে।

কী কী সুযোগ রাজ্যের লোকে পাবে?

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্য সরকার ক্ষমতায় আসার মাত্র চার মাস পরে 2021 সালের সেপ্টেম্বরে সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পটি চালু করা হয়েছিল।
  • এই প্রকল্পের অধীনে, বাংলায় মহিলাদের প্রতি মাসে 1,000 টাকা সামাজিক নিরাপত্তা পেনশন প্রদান করা হয়।
  • লক্ষ্মীর ভান্ডারের ক্ষেত্রে, 25-60 বছর বয়সী মহিলারা SC/ST, OBC এর জন্য 1000 টাকা পান যখন সাধারণ বর্ণের জন্য, পরিমাণ 500 টাকা।

FAQ/বহু চর্চিত প্রশ্ন

দুয়ারে সরকার প্রকল্প অর্থাৎ পঞ্চম সংস্করণ কবে চালু হয়েছে এবং কত দিন পর্যন্ত চলবে?

দুয়ারে সরকার অনুষ্ঠানের পঞ্চম সংস্করণ ১ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। ক্যাম্পে প্রাপ্ত সমস্ত আবেদনের নিষ্পত্তি 31 ডিসেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে।

Leave a Comment