ফেসবুক এবং টুইটার এর বিকল্প সোশ্যাল মিডিয়া চালু হতে চলেছে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে Truth Social

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি সম্প্রতি একটি নতুন পদক্ষেপ নিয়েছেন তাদের সোশ্যাল মিডিয়া যাত্রা। নতুন রূপে নতুন ভাবে ফেসবুক এবং টুইটার এর মত আরেকটি অ্যাপ্লিকেশন তারা লঞ্চ করেছে। ট্রুথ সোশ্যাল নামের এই অ্যাপটি একুশে ফেব্রুয়ারি থেকে নিজের যাত্রা শুরু করে দিয়েছে।

গতবছর কিছু সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবাদ হয় রাস্ট্রপতির একাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়। সেখান থেকে সূত্র হয় এই নতুন অ্যাপ্লিকেশনের। ঠিক তার একবছর পরে একটি বিকল্প পথ বেছে নেয় রাষ্ট্রপতি এবং এর নতুন অ্যাপ্লিকেশন টি চালু করেন। এ সম্পর্কিত আরো কিছু বিস্তারিত তথ্য রয়েছে সেগুলো আমরা একটু জেনে নেব

নজির করেছে এই Truth Social

নজির করেছে এই অ্যাপ্লিকেশনটি। প্রথম দিনেই ট্রুথ অ্যাপ্লিকেশন অ্যাপস্টরে ক্যাটাগরিতে প্রথম সারির প্রথমে অবস্থান করেছে। মাত্র 3 ঘন্টার ভিতরেই রুট অ্যাপ্লিকেশনের ডাউনলোড সংখ্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে 90 হাজারেরও বেশি। এখান থেকে মানুষের আগ্রহ এই এপ্সটি সম্পর্কে স্পষ্ট ভাবে বোঝা যাচ্ছে।

অ্যাপ্লিকেশনের কিছু ফিচারস  Truth Social

এইবার অ্যাপ্লিকেশনের কিছু ফিচারস নিয়ে কথা বলা যাক। যদি আপনি অ্যাপ্লিকেশন টি দেখে থাকেন তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন এই অ্যাপ্লিকেশন টা অনেকটা কিসের মত। ব্যবহারকারীরা জানাচ্ছেন এইটি দেখতে অনেকটা টুইটারের মতো।

টুইটার এবং ফেসবুকের অভিসারী কিন্তু এই অ্যাপ্লিকেশন এ দেখতে পাওয়া যাবে। টু রুট অ্যাপ্লিকেশনের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং করা যাবে টুইট এবং স্ট্যাটাস দুটোই কিন্তু শেয়ার করা যাবে। ফেসবুকে যেরকম হোমপেজ রয়েছে বা বলা যেতে পারে নিউজ ফিড ঠিক তেমনই আমেরিকায় এই অ্যাপ্লিকেশনে থাকবে ট্রুথ ফিড।

এক কথায় বললে অনেকটা ফেসবুকের মতোই।

কি কি করা যবে এই অ্যাপ্লিকেশনে

যেরকম ফেসবুকে আপনি একটি পোস্ট শেয়ার করতে পারেন। আবার টুইটারে কোন একটি পোস্ট কে আপনি রি-টুইট করতে পারেন সাথে শেয়ার করতে পারেন। কাজ করা যাবে পুরো সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ এ।

কিন্তু ট্রুথ সোশ্যাল অ্যাপ এ এই একই কাজের নাম পাল্টে রাখা হয়েছে রিট্রুথ। এই অ্যাপ্লিকেশনটির নামটা দ্রুত ইংরেজি শব্দ থেকে নেয়া হয়েছে। ইনস্টাগ্রাম ফেসবুক এবং টুইটার এর মতো এই অ্যাপ্লিকেশনের পাওয়া যাবে ভেরিফিকেশন ব্যাচ এবং সমস্ত ফিচার যেগুলোকে সোশ্যাল মিডিয়া এগুলোতে পাওয়া যায়।

 Truth Social এর বিস্তারিত বর্ণনা 

2021 সালের ডিসেম্বর মাসে কিছুজন ব্যবহারিকে নিয়ে পরীক্ষা মূলক কাজ শুরু হয় আমেরিকার এই নতুন অ্যাপ্লিকেশন এ। বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা তারা করতে থাকে এবং একুশে ফেব্রুয়ারি 2022 সালে এটিকে অ্যাপেল স্টোর মুক্তি দেয়া হয় এটি শুধুমাত্র আইফোন ব্যবহারকারীরা ব্যবহার করতে পারবে।

গুগল প্লে স্টোরে এই অ্যাপটি মুক্তি পায়নি তবে বলা হচ্ছে খুব শীঘ্রই এটি গুগল প্লে স্টোর এর জন্য চলে আসবে। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা এই অ্যাপটি নিঃসন্দেহে ব্যবহার করতে পারে এমনটাই বলছেন রাষ্ট্রপতি।

বর্তমানে শুধুমাত্র আপনি আমেরিকা দেশেই এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন অন্য দেশের জন্য এই অ্যাপটি বন্ধ রয়েছে। ভবিষ্যতে বাকি দেশগুলোর জন্য এই অ্যাপ টি খুলে দেয়া হবে।

আর পড়ুন  – অনলাইনে Mobile দিয়ে টাকা ইনকাম করার 20 টি উপায় 

তবে কিছু টেকনিক্যাল গোলযোগ থাকার কারণে এই অ্যাপটি অ্যাপেল স্টরি লঞ্চ করার পরে সার্ভার ডাউন হয়ে যায়। একই সময়ে একটি নতুন অ্যাপ্লিকেশনে এত ভিড় দেখে কোম্পানিটি অবাক হয়ে গিয়েছিল।

ব্যবহারকারীদের অনেক রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে ওই নির্দিষ্ট সময়ের। যাদের ভেরিফিকেশন বেছে নেওয়ার কথা ছিল তাদেরকে ওয়েটিং লিস্টে রাখা হয়। ধীরে ধীরে এই সমস্যাগুলি কিন্তু সমাধান করে দেয়া হয় কোম্পানির থেকে।

এই অ্যাপটি নিচে দেওয়া লিঙ্ক থেকে আপনি দেখতে পারবেন। অ্যাপেল স্টরি কিন্তু এই অ্যাপটি বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে এবং আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে।

Leave a Comment